অবশেষে জানা গিয়েছে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির তারিখ। ক’রোনার কারনে দীর্ঘদিন ধরে ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত থাকলেও এবার ঘোষণা করা হয়েছে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির সময়।

শিক্ষা ম’ন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল খায়ের জানিয়েছেন আগামী ৯ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাচ্ছে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির কার্যক্রম।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে এবারও থাকছে কোটা ভিত্তিক বিভাজন। মুক্তিযোদ্ধা ও অন্যান্য কোটার ব্যাপারেও বিস্তারিত জানিয়েছেন তিনি।

বেশ কয়েকদিন আগেই শিক্ষামন্ত্রী জানিয়েছিলেন অতি শিঘ্রই চালু হতে যাচ্ছে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি। আজ রবিবার (১৯ জুলাই) জানা গেছে ভর্তির এমন ত’থ্য।

অন্যান্য বার মোবাইলের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন করতে পারলেও শিক্ষার্থীদের ব্যয় কমানোর জন্য শুধুমাত্র অনলাইনে ভর্তির আবেদন করা যাবে। একজন শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ দশটি কলেজে আবেদন করতে পারবে। তবে বর্ধিত করা হয়েছে ভর্তি ফি।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে কোটার বিভাজন সম্প’র্কে বিস্তারির জানাতে গিয়ে বলা হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৫ শতাংশ, প্রবাসী কোটা দশমিক ৫ শতাংশ এবং বিকেএসপির ক্ষেত্রেও দশমিক ৫ শতাংশ শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে একটি প্রতিষ্ঠান।

প্রবাসীর স’ন্তানরা সরাসরি বোর্ডের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন করতে পারবে। তবে বিভাগীয়, জে’লা সদর এবং শিক্ষা ম’ন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা দপ্তরগুলোর কোটার ব্যাপারে এখনও বিস্তারিত জানা যায়নি।

অন্যদিকে এলাকাভিত্তিক বিভিন্ন ভাগে ভর্তির ব্যাপারেও বিস্তারিত জানানো হয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন এর আওতাভুক্ত এমপিওভুক্ত কলেজ গুলোতে ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ হাজার টাকা।

আংশিক এমপিওভুক্ত এবং এমপিওভুক্ত বিহীন যে সকল কলেজ রয়েছে সেগুলোতে ভর্তির ক্ষেত্রে বাংলা মাধ্যম গুলোতে গুনতে হবে ৯ হাজার টাকা ও ইংরেজি মাধ্যমগুলোতে ভর্তির ক্ষেত্রে আরও এক হাজার টাকা অতিরিক্ত অর্থাৎ ১০ হাজার টাকা গুনতে হবে।

কোনো কলেজ তাদের উন্নয়ন ফি বাবদ সর্বোচ্চ ৩ হাজার টাকা নিতে পারবে। এবং অবশ্যই তার রশিদের মাধ্যমেই হতে হবে।

মফস্বল ও পৌর এলাকায় কলেজে ভর্তির ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার টাকা। পৌর জে’লা সদরে ২ হাজার এবং ঢাকা ব্যতিত অন্য মেট্রোপলিটন এলাকায় ভর্তির ক্ষেত্রে নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ হাজার টাকা।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির কার্যক্রম সম্প’র্কে জানাতে গিয়ে ঢাকা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক ড. হারুন-অর-রশিদ জানিয়েছেন দ্রু’তই ভর্তির পূর্না’ঙ্গ নীতিমালা জানানো হবে।

তার ভাষ্য, “ইতোমধ্যে ভর্তির প্রকাশিত নীতিমালা অনুযায়ী শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। শুধুমাত্র সময়সূচী পরিবর্তন হয়েছে। শীঘ্রই আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সাব কমিটির সাথে আলোচনা করে পুর্না’ঙ্গ সময় জানানো হবে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here