বলিউডের ‘খিলাড়ি’খ্যাত জনপ্রিয় অভিনেতা অক্ষয় কুমার। ফি’টনেস আর দুঃসাহসিকতার জন্য তিনি বেশ প্রশংসনীয়ও।

সম্প্রতি এই অভিনেতা জানিয়েছেন, সুস্থ ও ফি’ট থাকতে নিয়মিত গোমূ’ত্র পান করেন তিনি। ব্রিটিশ ‘সারভাইভালিস্ট’ বিয়ার গ্রিলসের ‘ইনটু দি ওয়াইল্ড উইথ বিয়ার গ্রিলস’ শোয়ের একটি পর্বে অক্ষয় এ কথা জানিয়েছেন।

লাইভ অনুষ্ঠানটিতে হুমা কুরেশি বিয়ার গ্রিলসকে প্রশ্ন করেন, অক্ষয়কে কীভাবে এই চা পান করতে রাজি করিয়েছেন? জবাবে পাশ থেকে অক্ষয় বলেন, ‘আমি এ নিয়ে মোটেও চিন্তিত নই। আয়ুর্বেদিক কারণে আমি প্রতিদিন গোমূ’ত্র পান করি। তাই কোনো অসুবিধা হয়নি।’

অক্ষয়ের স’ঙ্গে কাজের অ’ভিজ্ঞতা প্রস’ঙ্গে বিয়ার গ্রিলস জানান, তিনি অক্ষয়কে ব্যক্তিগতভাবে চিনতেন না। কিন্তু তার স’ঙ্গে দেখা হওয়ার পর বুঝতে পেরেছেন, অক্ষয় খুবই প্রা’ণোচ্ছল এবং তার কোনো ইগো নেই। এ ছাড়া অক্ষয়ের ফি’টনেসের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘বিগত বছরগুলোতে যারা অতিথি হিসেবে এসেছেন, তাদের মধ্যে অক্ষয় শীর্ষে থাকবেন।’

আরো পড়ুন

আমরা নবী মোহাম্ম’দের ব্যা’ঙ্গা’ত্মক কা’র্টুন বন্ধ করবো না – ম্যাক্রো

চেচেন কি’শোরের হাতে নি’হ’ত স্যামুয়েল প্যাটির শেষ কৃত্যানুষ্ঠানে এক কথা বলেন ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ম্যাঁক্রো বলেন, ‘তাকে হ’ত্যা করা হয়েছে কারণ ইসলামপন্থী উ’গ্রবা’দীরা আমাদের ভবি’ষ্যত কে’ড়ে নিতে চায়। আমরা তা হতে দে’বো না।

এদিকে শিক্ষক হ’ত্যার ঘ’টনার আরো দুজন কি’শোরের বিরু’দ্ধে মা’ম’লা দা’য়ের করা হয়েছে। ১৪ এবং ১৫ বছর ব’য়সী ওই দুই কি’শোর স্যামুয়েল প্যাটির স’ন্ধান দেওয়ার জন্য কাজ করেছেন বুধবার জানিয়েছেন ফ্রান্সের স’ন্ত্রাসবি’রো’ধী প্র’সিকিউটর জ্যান-ফ্রাঙ্কোয়েস রি’কার্ড। এই ঘ’টনায় এখন পর্যন্ত সাতজনের বি’রুদ্ধে মা’মলা দা’য়ের করা হলো।

গত শুক্রবার প্য়ারিসের রাস্তায় শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে ‌‌‌‌‌‌‌’আল্লাহু আকবর’ বলে হ’ত্যা করেছিল এক কি’শোর। কারণ, ওই শিক্ষক ক্লাসে মহানবীর কা’র্টুন দেখিয়ে মত প্র’কাশের স্বা’ধীনতার ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন। শিক্ষকের ও’পর হা’ম’লা’কারী আব’দৌলখ নামের ওই তরুণ ঘ’টনাস্থলেই পু’লিশের গু’লিতে নি’হ’ত হয়।

এরপর থেকে ফ্রান্সে ইসলাম বি’দ্বেষ এখন তুঙ্গে। দেশটির প্রে’সিডেন্টসহ সকলেই এই ব্যা’পারে কথা বলছেন। অনেকে বলছেন, প্যারিস মু’সলিম’দের জন্য নিজেদের দুয়ার ব’ন্ধ করে দিতে পারে। এর আগে ম্যা’গাজিন শার্লে হে’বদোর কার্যালয়ে যারা হা’ম’লা করেছিলো তারাও ছিলো শ’রণার্থী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here